গাজীপুরে বাবা ও সৎমাকে হত্যার ১০ বছর পর ৪ ছেলে গ্রেফতার

আলোকিত প্রতিবেদক : গাজীপুর মহানগরীর বাসন এলাকায় বাবা ও সৎমাকে হত্যার ১০ বছর পর চার ছেলেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

শনিবার সকালে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, বাসনের মোহাম্মদ আলী (৬০), তার দ্বিতীয় স্ত্রী চায়না খাতুন (২৫) ও তাদের চার বছরের ছেলে ইমরান ২০০৫ সালে নিখোঁজ হন। আত্মীয়-স্বজনরা খোঁজ নিলে মোহাম্মদ আলীর প্রথম সংসারের ছেলেরা তাদের বাবা রাগ করে সৎমা ও ভাইকে নিয়ে রংপুর চলে গেছেন বলে জানান।

র‌্যাবের এএসপি মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, এ ঘটনার পর কেউ মামলা বা জিডি করেননি। দীর্ঘদিন পর মেয়ে ও নাতির কোন সন্ধান না পেয়ে চায়নার মা বিষয়টি র‌্যাবকে জানান।

পরে তদন্তে হত্যার তথ্য ওঠে আসলে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন রমজান আলী (৫০), বাবুল হোসেন (৩৭), আরফান আলী (৩৫) ও আকরাম আলী (৩০)।

এ সময় তাদের আরেক ভাই আহসান হাবিব পালিয়ে যান।

জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্তরা র‌্যাবকে জানায়, তারা তাদের বাবা ও সৎমাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ প্লাস্টিকের বস্তায় ভরে তুরাগ নদীতে ডুবিয়ে দেন। পরে সৎভাই ইমরানকে সিলেটের হজরত শাহজালালের (র.) মাজারে রেখে আসেন।

মোহাম্মদ আলী তার দ্বিতীয় স্ত্রী ও ছেলেকে জমি লিখে দেওয়ার জের ধরে এ হত্যাকান্ড ঘটে।

আরও খবর

Contact Us