ইবাদত-বন্দেগি ও রহমতের রাত পবিত্র শবে বরাত

আলোকিত প্রতিবেদক : মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) শাবান মাসে বেশি বেশি নফল রোজা রাখতেন। রমজানের প্রস্তুতির মাস হিসেবে তিনি এ মাসকে পালন করতেন। এ মাসের একটি রাতকে মুসলমানরা বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। মধ্য শাবানের এই রাত পবিত্র ‘শবে বরাত’ হিসেবে পরিচিত।

ফারসি ‘শব’ শব্দের অর্থ রাত এবং ‘বরাত’ অর্থ সৌভাগ্য। এ দুইয়ে মিলে শবে বরাত অর্থ ‘সৌভাগ্যের রজনী’।

আল্লাহ তায়ালা এ রাতে বান্দাদের জন্য তার অশেষ রহমতের দরজা খুলে দেন। মহিমান্বিত এ রাতে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা জীবনের সব ভুল-ভ্রান্তি ও পাপ-তাপের জন্য গভীর অনুশোচনায় আল্লাহর দরবারে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

মুসলমানরা শবে বরাতে নফল নামাজ, জিকির-আসগার ও কোরআন শরিফ তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে বিনিদ্র রাত কাটান এবং আল্লাহ তায়ালার কাছে ভবিষ্যৎ জীবনে পাপ-পঙ্কিলতা পরিহার করে পরিশুদ্ধ জীবন যাপনের জন্য বিনম্র প্রার্থনা করেন।

একই সাথে মৃত আত্মীয়-স্বজনের কবর জিয়ারত করে তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

অনেকে গভীর রাত অবধি ইবাদত-বন্দেগিতে মশগুল থেকে শেষ রাতে সেহরি খেয়ে পরদিন নফল রোজা রাখেন।

আরও খবর

Contact Us