৪ জেলায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১০ : আহত শতাধিক

আলোকিত প্রতিবেদক : শনিবার সারা দেশে পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র দখল, সংঘর্ষ, জাল ভোট, ব্যালট পেপার ছিনতাই ও গুলির ঘটনা ঘটেছে।

এতে দুই প্রার্থীসহ নিহত হয়েছেন ১০ জন। আহত হয়েছেন শতাধিক।

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে।

আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থক ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে দুই কিশোরসহ নিহত হন চারজন।

নিহতরা হলেন : কুতুবেরচর গ্রামের জিয়াউর রহমান (২৫), নবীরুল ইসলাম (১৬), শেখপাড়া গ্রামের মাজেদ আলী (১৫) ও নূরুল ইসলাম (৩৫)।

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার বড়উঠান ইউনিয়নে মেম্বার প্রার্থী ইয়াছিনকে (৪৫) ছুরি মেরে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আহত মোহাম্মদ হোসেন সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

পটিয়া উপজেলার আশিয়া ইউনিয়নে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে বাবুল শীল নামে একজন মারা যান।

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী কামাল উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার রাজগঞ্জ ইউনিয়নে সৈয়দ আহমদ (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ মারা যান।

একই উপজেলার জিরতলী ইউনিয়নে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে শাকিল (১৬) নামে এক কিশোর নিহত হয়।

আরও খবর

Contact Us