নির্বাচনী সহিংসতা : ৬ ধাপে নিহত ১১৬

আলোকিত প্রতিবেদক : শনিবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের শেষ ধাপের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

এ দিন দেশের ৪৬ জেলার ৯২ উপজেলার ৭১০ ইউপিতে ভোট গ্রহণ হয়।

এতে নানা অনিয়মের সাথে চলে সংঘর্ষ। নিহত হন চারজন।

তফসিল ঘোষণার পর থেকে অদ্যাবধি সারা দেশে মোট ১১৬ জন নিহত হয়েছেন।

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন ও নির্বাচন কমিশন সূত্র এ তথ্য জানায়।

শনিবার কেন্দ্র দখল ও প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

এতে ময়মনসিংহ, ফেনী, নোয়াখালী ও সুনামগঞ্জে চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন।

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার সালতিয়া ইউনিয়নে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে প্রার্থী মোশারফ হোসেনের ভাই শাহজাহান মিয়া (৫২) নিহত হন।

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে সুমন (৩০) নামে একজন নিহত হন।

নোয়াখালী সদরের নেয়াজপুর ইউনিয়নে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ছাত্রলীগ কর্মী আরাফাত (২৩) নিহত হন।

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নে পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের হামলায় বিজয়ী প্রার্থী শামছুল হক চৌধুরীর ছেলে কোহিনূর চৌধুরী নিহত হন।

আরও খবর

Contact Us