কাপাসিয়ায় শিশু নির্যাতনের অভিযোগ করায় মুরগি মিলনের লাফালাফি

আলোকিত প্রতিবেদক : গাজীপুরের কাপাসিয়ায় শিশু নির্যাতনের ঘটনায় থানায় অভিযোগ করায় এক পাতি নেতার লাফালাফি শুরু হয়েছে।

ওই নেতার নাম মিজানুর রহমান মিলন ওরফে মুরগি মিলন।

তিনি উপজেলার রায়েদ ইউনিয়নের টানচৌড়াপাড়া গ্রামের বোরহান মোড়লের ছেলে।

অভিযোগে জানা যায়, একই গ্রামের জিয়াউর রহমানের মাদ্রাসা পড়ুয়া মেয়েকে (১০) পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিবেশী মরহুম সাইজুদ্দিনের ছেলে সুজন, তার মা আসমা ও নানা আকবর মোড়ল গত ২৭ জুন বিকেলে রাস্তা থেকে ধরে বাড়ির উঠানে নিয়ে নির্যাতন করেন।

পরে আহতকে উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা করা হয়।

এ ঘটনায় ২৯ জুন কাপাসিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করলে ওসি আবু বকর সিদ্দিক রাতে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠান।

পুলিশ অভিযোগের সত্যতা পেয়ে চলে যাওয়ার পরপরই আসামিদের আত্মীয় ওই মুরগি মিলন ও তার সহযোগী মনির মোড়ল দলবল নিয়ে বাদী পরিবারকে হামলা-মামলার ব্যাপক হুমকি দেওয়া শুরু করেন।

তাদের প্রকাশ্য হুমকিতে এলাকার সাধারণ মানুষও অবাক হয়ে পড়েছেন।

বাদী অভিযোগ করেন, আসামি পক্ষ অত্যন্ত উগ্র প্রকৃতির। তাদের দ্বারা যে কোন সময় জানমালের ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। পুলিশ তদন্ত করে চলে যাওয়ার পর থেকে রাতের আঁধারে বাড়ির বাইরে সন্ত্রাসীদের বিচরণের শব্দ পাওয়া যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে কাপাসিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিকের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন।

আরও খবর

Contact Us