আলোকিত নিউজের সম্পাদককে হুমকি দিয়ে অধ্যক্ষের প্রতিবাদ!

আলোকিত প্রতিবেদক : গাজীপুরের কাপাসিয়া ডিগ্রি কলেজে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

বিষয়টি নিয়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি আলোকিত নিউজ ডটকমে ‘কাপাসিয়া কলেজে অধ্যক্ষ ছানাউল্লাহর দুর্নীতির ডিগবাজি’ ও ২৭ ফেব্রুয়ারি ‘কাপাসিয়া কলেজ থেকে প্রভাষক আরিফ আউট’ শিরোনামে তথ্যবহুল প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

এ ব্যাপারে অধ্যক্ষ মো. ছানাউল্লাহ আলোকিত নিউজের সম্পাদক বরাবর একটি প্রতিবাদপত্র পাঠিয়েছেন।

তাতে তিনি উল্লেখ করেন, সংবাদে অনুমতি ব্যতীত অন্যায়ভাবে আমার ছবি ব্যবহার করা হয়েছে এবং কতগুলো মিথ্যা, বানোয়াট, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত তথ্য দিয়ে কলেজের সম্মানিত শিক্ষকমন্ডলী ও আমার মান-সম্মান ক্ষুণ্ণ করা হয়েছে।

সে সঙ্গে অত্র কলেজের সুনাম ও ভাবমূর্তি বিনষ্ট করা হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদগুলো মোটেই সত্য নয়, এগুলো ইচ্ছাকৃতভাবে সম্মানহানির জন্য প্রকাশ করা হয়েছে। আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : কাপাসিয়া কলেজে অনিয়মের তথ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্তে ওঠে এসেছে। একই সাথে অধ্যক্ষের অদক্ষতা ও ব্যর্থতা চিহ্নিত করে তাকে বরখাস্তেরও চিঠি দেওয়া হয়।

পরে তিনি হাইকোর্টে রিট করে পরপর তিনবার স্থগিতাদেশ এনে পদ বহাল রাখেন। পাশাপাশি নানা কৌশলে দুর্নীতি অব্যাহত থাকে।

আলোকিত নিউজ সদা বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী। নিয়োগবিধি ও ছুটিবিধির আলোকে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়েই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনের কোন অংশে কারও সম্মানহানির উদ্দেশে ইচ্ছাকৃতভাবে কিছু উল্লেখ করা হয়নি। শুধু দুর্নীতির তথ্যগুলো তুলে ধরা হয়েছে।

অধ্যক্ষ দায়সারাভাবে প্রতিবেদন দুটিকে মিথ্যা বলেছেন। প্রতিবেদনের একটি অংশও পাল্টা তথ্য বা যুক্তি দিয়ে খণ্ডন করতে পারেননি।

আর অভিযুক্তের ছবি প্রচলিত নিয়ম মেনে প্রকাশ করা হয়েছে। ছবি প্রকাশে অনুমতি নিতে হবে, এমনটি প্রেস অ্যাক্টে উল্লেখ নেই।

সম্পাদককে হুমকি : প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষ ছানাউল্লাহ আলোকিত নিউজের সম্পাদক রুবেল সরকারের ওপর ক্ষিপ্ত হন। তিনি গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১টা সাত মিনিটে ফোন করে বলেন, আপনি অবশ্যই কলেজে আসবেন। তা না হলে আপনার বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করব।

এরপর ২৫ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টা ৫১ মিনিটে ব্যবস্থাপনা বিষয়ের প্রভাষক ইব্রাহীম মোড়ল ফোন করেন। তিনি ধমক দিয়ে বলেন, কলেজে আপনি দুই দিনের মধ্যে দেখা করবেন। যদি দেখা না করেন, যেনে পাই ধইরা আনব। আপনি বুঝতেও পারেন নাই যে কী হবে আপনার।

Share
আরও খবর