ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠনে তোড়জোড়

আলোকিত প্রতিবেদক : সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিএনপির সহযোগী সংগঠন ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হতে যাচ্ছে।

কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের লক্ষ্যে অচিরেই এ কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে বলে দলের একাধিক সূত্র আলোকিত নিউজকে জানায়।

পদ প্রত্যাশীদের সর্বশেষ শিক্ষাগত যোগ্যতা ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের তথ্য বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান চেয়েছেন বলেও জানা গেছে।

বর্তমান কমিটি দুই বছরের জন্য গঠিত হলেও মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে পাঁচ বছরে পদার্পণ করায় সংগঠনের ভেতরে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

বর্তমান সভাপতি রাজীব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসানের কাছে প্রায় দুই বছর আগে নতুন কমিটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন অর্ধশত কেন্দ্রীয় নেতা।

কয়েকজন সাবেক ছাত্রনেতা বলেন, আমরা বয়সকে প্রাধান্য দিচ্ছি না। ত্যাগী ও আন্দোলন-সংগ্রামে ভূমিকা রাখা ছাত্ররাই নতুন কমিটিতে অগ্রাধিকার পাবেন।

শীর্ষ পদে আলোচিতরা হলেন এজমল হোসেন পাইলট, ইখতিয়ার রহমান কবির, নাজমুল হাসান, আলমগীর হাসান সোহান, জহির উদ্দিন তুহিন, আবদুল ওহাব, আবু আতিক আল হাসান মিন্টু, মামুন বিল্লাহ, জহিরুল ইসলাম বিপ্লব, আসাদুজ্জামান আসাদ, আবদুর রহিম হাওলাদার সেতু, করিম সরকার, মিয়া মো. রাসেল, মেহবুব মাসুম শান্ত, মফিজুর রহমান আশিক, নূরুল হুদা বাবু, বায়েজীদ আরেফিন ও নাহিদুল ইসলাম সুহাদ।

পদ পেতে আরও চেষ্টা করছেন কাজী মোক্তার হোসাইন, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী, মিনহাজুল ইসলাম ভূঁইয়া, আবুল বাশার ও আরজ আলী শান্ত।

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, নতুন কমিটি গঠন এখনো আলোচনার পর্যায়ে আছে। বাস্তবে রূপ নেয়নি।

তিনি বলেন, এবারের কমিটি হবে সর্বজন সমর্থিত। যারা কমিটিতে আসবে, তাদেরকে অবশ্যই ছাত্র হতে হবে।

ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ও সভাপতি প্রার্থী ইখতিয়ার রহমান কবির বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনকে তরান্বিত করতে পরীক্ষিতরাই নেতৃত্বে আসবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

আরেক সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান বলেন, কমিটি গঠন নিয়ে তোড়জোড় চলছে। এই হচ্ছে তো আবার থেমে যাচ্ছে। আন্দোলন জোরদার করতে দ্রুত ঘোষণা করা উচিত।

image_printপ্রিন্ট করুন
Share
  • 102
    Shares
আরও খবর