গাজীপুরে মন্ডলের বনদস্যুতা : এবার তদন্তে মন্ত্রণালয়

আলোকিত প্রতিবেদক : গাজীপুরে বনের জমিতে মন্ডল গ্রুপের ১০ তলা ভবনের নির্মাণ কাজ চলছে দ্রুত গতিতে।

এ অবস্থায় আবারও সরেজমিনে তদন্ত করলেন পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব এ এস এম ফেরদৌস।

বৃহস্পতিবার ভাওয়াল রেঞ্জ কর্মকর্তা আবুল হাসেম আলোকিত নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে বিষয়টি নিয়ে গত ১৬ অক্টোবর আলোকিত নিউজ ডটকমে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে চলে ব্যাপক তোলপাড়।

পরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে বন্যপ্রাণী পরিদর্শক নিগার সুলতানা গত ৩১ অক্টোবর সরেজমিনে তদন্ত করেন।

কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরে প্রকাশ্যে সংঘটিত এই অপরাধ প্রতিরোধে এখনো কোন কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

ভবানীপুর বিট কর্মকর্তা খন্দকার আরিফুল ইসলাম স্থাপনার বাইরে খুঁটি পুঁতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির কাল্পনিক প্রচারণা চালাচ্ছেন।

সরেজমিনে জানা যায়, শিরিরচালার বাঘের বাজার এলাকায় মন্ডল গ্রুপের নতুন ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে চার তলার কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

সেখানে জমির পরিমাণ ৪৫ শতাংশ। মাহনা ভবানীপুর মৌজার এসএ ৬৭৫ নং দাগের ওই জমি বন বিভাগের নামে গেজেটভুক্ত।

স্থানীয়রা জানান, দখলীয় জমির বর্তমান বাজারমূল্য পাঁচ কোটি ৪০ লাখ টাকা। কতিপয় কর্মকর্তার যোগসাজশে তা বেহাত হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বিট অফিস কয়েকটি মামলা দিয়েই দায় সারছে। ডিএফও জহির উদ্দিন আকন শুরু থেকেই নীরব ভূমিকা পালন করছেন।

Share
আরও খবর