অবশেষে গাজীপুর ছাড়লেন ‘বনের রাজা’ হাসেম

আলোকিত প্রতিবেদক : গাজীপুরে ‘বনের রাজা’ খ্যাত ফরেস্টার আবুল হাসেম চৌধুরীকে অবশেষে বদলি করা হয়েছে।

বন্যপ্রাণী বিভাগের জাতীয় উদ্যান রেঞ্জের পার্ক বিট থেকে তাকে শেরপুরে বদলি করা হয়।

এর আগে বদলির আদেশ হলেও বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জহির উদ্দিন আকনের প্রশ্রয়ে তিনি বহাল তবিয়তে থাকেন।

বিষয়টির ওপর গত ২৮ জানুয়ারি আলোকিত নিউজ ডটকমে তথ্যবহুল প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের টনক নড়ে।

সোমবার রেঞ্জ কর্মকর্তা রেজাউল করিম আলোকিত নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

অনুসন্ধানে প্রাপ্ত তথ্যমতে, হাসেম চৌধুরী ভবানীপুর বিটে থাকাকালীন ব্যাপক দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন। তিনি বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের হাতে তুলে দেন মূল্যবান বনভূমি।

এর মধ্যে ভবানীপুর স্কুল রোডের লীরা ডোরস প্রায় ২৬ শতাংশ বনভূমি দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করে।

বিট অফিসের কাছে শিরিরচালা এলাকায় গেজেটভুক্ত কয়েকটি দাগের বনভূমি দখল করে কারখানা সম্প্রসারণ করে ইভিন্স গ্রুপ।

এ ছাড়া ভবানীপুর ও বানিয়ারচালা এলাকার মোশারফ কম্পোজিট ২৪ শতাংশ বনভূমি দখল করে গড়ে তুলে পাঁচ তলা অফিসার্স ভবন।

এসব নিয়ে আলোকিত নিউজে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে চলে তোলপাড়। পরে তদন্তে সত্যতা মেলে।

এরপর হাসেম চৌধুরীর বিরুদ্ধে দায়ের হয় বিভাগীয় মামলা। কিন্তু গত দুই বছরেও তাকে শাস্তি ভোগ করতে হয়নি।

আরও পড়ুন : গাজীপুরে ‘বনের রাজা’ ফরেস্টার হাসেম বহাল তবিয়তে!

Share
আরও খবর