কাপাসিয়ায় চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণরোষের মুখে পল্লী বিদ্যুৎ

শামসুল হুদা লিটন, কাপাসিয়া : বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের পরও দাবিকৃত চাঁদা না দেওয়ায় ব্যবসায়ীদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও মিটার খুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার সিংহশ্রী ইউনিয়নের সোহাগপুর বাজারে দুই দিনব্যাপী উত্তেজনার পর রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত সোমবার সকালে কাপাসিয়া জোনাল অফিসের লাইনম্যান বোরহান ও ইলেকট্রিশিয়ান আল আমিন গ্রাহকদের কাছে দুই হাজার টাকা করে দাবি করেন। গোলাম মোস্তফা, বাদশা মিয়া ও স্বপন কুমার দাস চলতি মাসের পরিশোধিত বিলের কপি দেখানোর পরও সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

তখন ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মোশারফ হোসেন, বড়বেড় গ্রামের তোফায়েল আহমেদ মৃধা ও মোসলেম উদ্দিন মৃধা প্রতিবাদ করেন। খবর পেয়ে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির স্থানীয় পরিচালক মোহর আলীও উপস্থিত হন।

এক পর্যায়ে ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারীদের ঘেরাও করেন। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে তারা পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় ডিজিএম আবু মো. ইয়াহিয়া আকন্দ পরদিন দুপুরে পুলিশ নিয়ে বাজারে হানা দেন। তারা গ্রাহকদের মারধর করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও স্বপনকে আটক করেন।

এ সময় প্রতিবাদকারীদের মিটারও খুলে নেওয়া হয়। পরে বিক্ষুব্ধ ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী জড়িতদের বিচার দাবিতে রাস্তায় বেরিকেড দেন।

খবর পেয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, ওসি রফিকুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ ও ডিজিএম ইয়াহিয়া আকন্দ ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তারা বিস্তারিত শুনে সমস্যার সমাধান করেন।

গ্রাহকরা অভিযোগ করেন, পল্লী বিদ্যুৎ দালাল নির্ভর হয়ে পড়েছে। রাস্তার পাশে লাখ লাখ টাকা মূল্যের গাছ কাটার পরও ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে জনজীবন এখন অতিষ্ঠ।

image_printপ্রিন্ট করুন
Share
  • 1.6K
    Shares
আরও খবর