অধ্যক্ষ সোলায়মানের প্রতিবাদ ও প্রতিবেদকের বক্তব্য

গত ২৮ জুন আলোকিত নিউজ ডটকমে ‘কালিয়াকৈরে অধ্যক্ষের ধমকে কর্মচারীর হার্ট অ্যাটাক’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়।

সংবাদটির ব্যাপারে উপজেলার বড়ইবাড়ী এ কে ইউ ইনস্টিটিউশন ও কলেজের অধ্যক্ষ সোলায়মান সিকদার একটি প্রতিবাদপত্র পাঠিয়েছেন।

এতে বলা হয়, সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। অফিস কক্ষে এমন ঘটনা ঘটেনি। অফিস সহকারী আবদুল মালেক মিয়া দীর্ঘদিন ধরে দায়িত্ব পালনে অবহেলা করছেন।

অধ্যক্ষ বলেন, ঘটনার দিন একজন শিক্ষার্থী প্রশংসাপত্রের জন্য মালেকের কাছে গেলে তিনি লিখে দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। আমি তার রুমে গিয়ে দায়িত্বে অবহেলার বিষয়টি বুঝানোর চেষ্টা করলে মালেক আমার ওপর ক্ষিপ্ত হন।

আমি দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করে শিক্ষার্থীকে প্রশংসাপত্র দেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে চলে আসি। পরে মালেক একটি সাজানো হিসাবে স্বাক্ষর চাইলে হিসাবটি পরীক্ষা করে দিব বললে আবারও ক্ষিপ্ত হন।

প্রতিষ্ঠান ছুটির পর হঠাৎ জানতে পারি, মালেক বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। আমি তাকে দেখতে হাসপাতালে যাই এবং ডাক্তারদের সাথে কথা বলে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করি।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : ভুক্তভোগী মালেক মিয়ার অভিযোগ ও খোঁজ নিয়ে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে। তাই সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে অধ্যক্ষ যে দাবি করেছেন, তা অযৌক্তিক।

এ ছাড়া একজন কর্মচারী দীর্ঘদিন দায়িত্বে অবহেলা করলে যেখানে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা, সেখানে নীরব থেকে ক্ষিপ্ত হওয়া বা সাজানো হিসাবের অভিযোগ উত্থাপন বোধগম্য নয়।

image_printপ্রিন্ট করুন
Share
  • 51
    Shares
আরও খবর