পাকিস্তানি গৌরী ও চাঁদনীসহ ৮ ক্রিমে ‘বিপজ্জনক পারদ’

আলোকিত প্রতিবেদক : বিভিন্ন ব্র্যান্ডের রং ফর্সাকারী ১৩টি স্কিন ক্রিম পরীক্ষা করে আটটিতে বিপজ্জনক মাত্রার পারদ পাওয়া গেছে।

সোমবার বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে এ তথ্য জানায়।

বিএসটিআই জানায়, পাকিস্তানি ব্র্যান্ডের এসব ক্রিম দীর্ঘদিন ব্যবহার করলে বিভিন্ন ধরনের চর্মরোগ হতে পারে। স্কিন ক্রিমে পারদের গ্রহণযোগ্য মাত্রা ১ পিপিএম ও হাইড্রোকুইনোনের মাত্রা ৫ পিপিএম।

পরীক্ষায় গৌরী ক্রিমে ৭৫৬ পিপিএম, এস জে এন্টারপ্রাইজের চাঁদনী ক্রিমে ৬৩০ পিপিএম, কিউ সি ইন্টারন্যাশনালের নিউ ফেস ক্রিমে ৫৯০ পিপিএম, ক্রিয়েটিভ কসমেটিকসের ডিউ ক্রিমে ২৮৬ পিপিএম, গোল্ডেন পার্ল ক্রিমে ৬৫৪ পিপিএম ও পুনিয়া ব্রাদার্সের ফাইজা ক্রিমে ৫৯০ পিপিএম পারদ পাওয়া গেছে।

এ ছাড়া নূর ক্রিমে পারদ ১৯৪ পিপিএম ও হাইড্রোকুইনোন ১৯৮১ পিপিএম এবং হোয়াইট পার্ল প্লাস ক্রিমে পারদ ৯৪৯ পিপিএম ও হাইড্রোকুইনোন ৪৩৫ পিপিএম পাওয়া গেছে।

এ অবস্থায় জনস্বাস্থ্য রক্ষায় অনতিবিলম্বে এসব ক্রিম আমদানি, বিক্রি ও বিতরণ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Share
  • 116
    Shares
আরও খবর