ডুমনী স্কুলের সভাপতির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

আলোকিত প্রতিবেদক : গাজীপুরের শ্রীপুরের প্রহলাদপুর ইউনিয়নের ডুমনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতির বিরুদ্ধে নানা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম বর্তমানে গাজীপুর শহরের বরুদা এলাকার পাঁচ তলা বাড়িতে বসবাস করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নজরুল ইসলাম এসএসসি পাস। তার ছেলে ওই বিদ্যালয়ে পড়ে না। সে জোড়পুকুর এলাকার ক্যামফোর্ড স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র।

এ ছাড়া নজরুল ইসলাম দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ সরকারি সাবমারসিবল আত্মসাৎ করেছেন। তার মত প্রতারকের বিদ্যালয়ের সভাপতি পদে থাকা কাম্য নয়।

নজরুল ইসলামের স্বজনরা অভিযোগ করেন, তিনি কৌশলে বাবার জমি রেজিস্ট্রি করে নেওয়ায় তার ভাই-বোনেরা বঞ্চিত হয়েছেন। ছোট ভাই সিরাজুল ইসলামের মালয়েশিয়া থেকে পাঠানো টাকা আত্মসাৎ করায় তিন কন্যা নিয়ে তারা কষ্টে আছেন।

নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে এলাকায় আরও প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে। কেউ প্রতিবাদ করলে এক নেশাগ্রস্ত ভাতিজাকে দিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিয়ে গত ২৭ সেপ্টেম্বর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। তিনি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে নজরুল ইসলাম আলোকিত নিউজকে বলেন, তার ছেলের ডুমনী স্কুলে ভর্তি আছে। পারিবারিক শত্রুতার জের হিসেবে অভিযোগ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি ছিলাম ২০-২২ বছর। এখন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি।

সাবমারসিবল নেওয়া প্রসঙ্গে বলেন, এটা এমপি তাকে দিয়েছেন। তার গ্রামের বাড়িটি কিন্ডার গার্টেন করার কথা ছিল।

image_printপ্রিন্ট করুন
Share
  • 113
    Shares
আরও খবর