কাপাসিয়া হাসপাতালে কর্মচারী মাকসুদার দাপট!

নিজস্ব প্রতিবেদক : কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নানা অনিয়ম চলছে। কতিপয় কর্মচারী রোগীদেরকে প্রাইভেট হাসপাতাল বা ক্লিনিকে পাঠিয়ে কমিশন বাণিজ্য করছেন। এতে স্বাস্থ্যসেবায় সরকারের লক্ষ্য বিঘ্নিত হচ্ছে।

মাকসুদা বেগম। তিনি চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী। পদবি অফিস সহায়ক।

মাকসুদার বাড়ি হাসপাতালের কাছে নবীপুরে। তিনি এখানে দীর্ঘদিন ধরে আছেন।

মাকসুদা আগে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তখন থেকেই তার দৌরাত্ম্য বাড়তে থাকে।

একাধিক কর্মচারী জানান, মাকসুদা হাসপাতালে খেয়াল-খুশিমত চলেন। তিনি কাজের চেয়ে টাকার ধান্ধায় বেশি মনোযোগী। কর্তৃপক্ষ তাকে বদলি করলেও তিনি হাইকোর্টে রিট করে তা স্থগিত রেখেছেন।

গত ৮ জানুয়ারি মাকসুদা হাসপাতালের বহিঃবিভাগের সামনে থেকে বিনা অনুমতিতে কয়েকটি গাছ কেটেছেন।

এ ঘটনায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাসুদ রেজা কবীর তাকে গত ১০ জানুয়ারি শোকজ করেন।

এতে বলা হয়, মাকসুদা গাছ কাটার মাধ্যমে চাকরিবিধি লঙ্ঘন করেছেন। এটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

এ ব্যাপারে শনিবার সন্ধ্যায় মাকসুদা বেগমের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি আলোকিত নিউজ ডটকমকে বলেন, গাছ গত বছর আমরাই লাগিয়েছি। আমি কী কাটতে পারি। লেবার না বুঝে কেটে ফেলেছে।

আরও খবর

Contact Us