গাজীপুরে বনের গাছ কেটে ফ্যাক্টরি ও জুয়ার আসরের রাস্তা দিলেন ফরেস্টার এমদাদ!

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরে বনের জমি নিয়ে বাণিজ্য করছেন কতিপয় বন কর্মকর্তা। ফলে উজাড় হচ্ছে বনাঞ্চল। দখল হচ্ছে বনভূমি।

সরেজমিনে জানা যায়, জাতীয় উদ্যান রেঞ্জের বাউপাড়া বিট কর্মকর্তা এমদাদুল হক নানা দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েছেন। তার উদারতায় প্রকাশ্যে গাছপালা কেটে বনভূমি দখল করা হচ্ছে।

জাতীয় উদ্যানের ৩ নং গেটের পশ্চিমে ঘন গজারি বন। বনের ভেতরে গড়ে উঠেছে জিপার ফ্যাক্টরি। গাড়ি চলাচলের জন্য গাছ কেটে তৈরি করা হয়েছে রাস্তা।

ওয়াকিবহাল সূত্র জানায়, ফ্যাক্টরির মালিক বিট কর্মকর্তা এমদাদুল হক ও রেঞ্জ কর্মকর্তা আবুল হাসেমের যোগসাজশে রাস্তাটি করেছেন। এতে ছয় লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে বলে প্রচার রয়েছে।

রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তার পাশে দীর্ঘদিন ধরে প্যান্ডেল উঠিয়ে বড় জুয়ার আসর চলছে। এর নেতৃত্বে আছেন আরিফ ওরফে মুরগি আরিফ।

এই জুয়ার আসরের জন্যও বিট কর্মকর্তা উদার। জুয়ার ব্যবসায়ীরা প্যান্ডেলের পশ্চিম পাশের বনের মধ্য দিয়ে গাছ কেটে রাস্তা তৈরি করেছেন। এ রাস্তায় জুয়াড়ি, দর্শক ও তাদের যানবাহন চলাচল করছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানান, জুয়ার আসর থেকে বিট অফিসে দৈনিক ১০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। এ থেকে বিট কর্মকর্তা এমদাদুল হক পান পাঁচ হাজার টাকা। বাকি পাঁচ হাজার টাকা পান কর্মচারীরা। আসরে গিয়ে টাকা আনেন বন প্রহরী মেহেদুল ইসলাম ও শেখর চন্দ্র দাস।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের সাথে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তারা কল ধরেননি।

আরও খবর

Contact Us