একাত্তরের গণহত্যার দায় অস্বীকার করছে পাকিস্তান : অবাক বিশ্ববিবেক

<strong>নিজস্ব প্রতিবেদক :</strong> পাকিস্তান ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের নিরীহ ও নিরস্ত্র মানুষের ওপর পৈশাচিক হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল। নয় মাসের মুক্তিসংগ্রামে প্রতিষ্ঠা পায় স্বাধীন বাংলাদেশ। শহীদ হন ৩০ লাখ মানুষ। ইজ্জত হারান দুই লাখ মা-বোন। সেই হানাদার বাহিনীর সহযোগী রাজাকারদের বিচার করছে বাংলাদেশ। ইতিমধ্যে চার শীর্ষ যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসির রায় কার্যকর করা হয়েছে। রায় কার্যকর হলেই প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে পাকিস্তান। এতে যুদ্ধাপরাধীরা যে পাকিস্তানের ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন তা আরও পরিষ্কার হচ্ছে। একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশের অভ্যন্তরীণ বিচার প্রক্রিয়ায় পাকিস্তানের ‘অমানবিক মন্তব্য’ জনগণকে ক্ষুব্ধ করে তুলছে। বাংলাদেশও ঢাকাস্থ পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ‘কড়া প্রতিবাদ’ জানিয়েছে। সাকা ও মুজাহিদের ফাঁসি কার্যকরে পাকিস্তান অস্থির হয়ে পড়েছে। সোমবার পাকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার মৌসুমী রহমানকে তলব করে ইসলামাবাদ। এ সময় তার হাতে একটি প্রতিবাদপত্র তুলে দিয়ে পাকিস্তান ১৯৭১ সালে গণহত্যার দায় অস্বীকার করে। পাকিস্তানের এ ধরনের নির্লজ্জ কর্মকান্ডে অবাক মানবতা। অবাক হচ্ছে বিশ্ববিবেক।

আরও খবর

Contact Us