মামির সাথে অনৈতিক সম্পর্কে জুতাপেটা করায় একাই ৫ খুন করেন মাহফুজ!

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জে দুই শিশুসহ পাঁচ খুনের মামলায় নিহত তাসলিমার স্বামী শফিকুল ইসলামের ভাগিনা মাহফুজ একাই পাঁচজনকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইদুজ্জামান শরিফের আদালতে বৃহস্পতিবার তার জবানবন্দি গ্রহণ করা হয়।

পরে সংবাদ সম্মেলনে নারায়ণগঞ্জের ‍পুলিশ সুপার খন্দকার মহিদ উদ্দিন বলেন, মামি লামিয়ার সঙ্গে মাহফুজের অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। এ কারণে তার ছোট মামা শরীফ ঢাকা থেকে পরিবার নিয়ে নারায়ণগঞ্জে চলে আসেন।

হত্যাকান্ডের ১৬ দিন আগে অনৈতিক সম্পর্কের কারণে মাহফুজকে পারিবারিক সালিশে জুতাপেটা করা হয়েছিল। সেই ক্ষোভে মাহফুজ হত্যার পরিকল্পনা করেন।

পুলিশ সুপার বলেন, হত্যাকান্ডের রাতে মাহফুজ তাসলিমার বাসায় এসে লামিয়ার খাটের নিচে লুকিয়ে ছিলেন। তা দেখে তাসলিমার ভাই মোরশেদ তাকে বকাঝকা করে নিজের রুমে নিয়ে যান।

এরপর মাহফুজ রান্নাঘরের শিল দিয়ে মাথায় আঘাত করে একের পর এক হত্যা করেন।

রাত তিনটার দিকে প্রথমে ঘুমন্ত অবস্থায় মোরশেদকে হত্যা করা হয়।

এরপর মামি তাসলিমা, লামিয়া ও মামাতো বোন সুমাইয়াকে হত্যা করা হয়।

সকাল সোয়া সাতটার দিকে মামাতো ভাই শান্তকে দেয়ালে মাথায় আঘাত দিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়।

পরে ঘরে তালা দিয়ে মাহফুজ চলে যান।

আরও খবর

Contact Us