জ্যাকেট কেনার টাকার জন্য বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন!

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুড়িগ্রামে জ্যাকেট কেনার টাকার জন্য এক বন্ধুকে হত্যা করেছে আরেক বন্ধু।

ঘটনার চার দিন পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিহতের লাশ ঘাতক বন্ধুর বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত আলিফ আহম্মেদ স্বপ্ন (১৪) শহরের ব্যবসায়ী সুলতান আহম্মেদের একমাত্র ছেলে। সে স্থানীয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির মেধাবী ছাত্র ছিল।

নিহতের পরিবার ও থানা পুলিশ সাংবাদিকদের জানায়, স্বপ্ন গত ২১ ডিসেম্বর সকালে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু রিফাতের সাথে কথা বলতে বাসা থেকে বের হয়। এরপর থেকে তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না।

এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করলে পুলিশ রিফাত ও তার মা নার্স মোর্শেদা বেগমকে দুই দফা আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তারা হত্যার কথা স্বীকার করে।

পরে স্বপ্নের গলিত লাশ মোর্শেদার বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে রিফাত জানায়, তার আরেক বন্ধু আকাশ একটি জ্যাকেট কিনতে কুড়িগ্রামে আসে। টাকা না থাকায় তারা স্বপ্নকে মোবাইলে ডেকে আনে।

তাদের উদ্দেশ্য ছিল, স্বপ্নকে আটকে রেখে মুক্তিপণ আদায় করা। কিন্তু স্বপ্নের চিৎকারে তারা ভয় পেয়ে যায়। এক পর্যায়ে গলায় মাফলার পেঁচিয়ে ধরলে স্বপ্ন মারা যায়। পরে মোর্শেদার সহায়তায় লাশ গুম করা হয়।

আরও খবর

Contact Us