শহীদ বুদ্ধিজীবীদের ‘নির্বোধ’ বলে গয়েশ্বরের বাহাস!

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত যারা পাকিস্তানের বেতন-ভাতা খেয়েছে তারা নির্বোধের মত মারা গেল। আর আমাদের মত নির্বোধেরা শহীদ বুদ্ধিজীবী হিসেবে ফুল দিই। আবার না গেলে পাপ হয়।

জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে শুক্রবার বিকেলে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

গয়েশ্বর বলেন, নেতৃত্বের অজ্ঞতা ও আগাম সতর্কতার অভাবে ২৫ মার্চ যারা মারা গেছেন তারা না জানার কারণে মারা গেছেন। কিন্তু ১৪ ডিসেম্বর যারা মারা গেছেন তারা অজ্ঞতার কারণে মারা যাননি।

তিনি আরও বলেন, যারা পাকিস্তানের বেতন খাইল তারা হয়ে গেল মুক্তিযোদ্ধা। আর যারা না খেয়ে পালিয়ে বেড়াল তারা হয়ে গেল রাজাকার। এই বিষয়গুলো পরিষ্কার করা দরকার।

জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও রিজভী আহমেদ’ শীর্ষক ওই আলোচনা সভার আয়োজন করে রাজশাহী ইউনিভার্সিটি ন্যাশনালিস্ট এক্স-স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন।

এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্তিযোদ্ধাদের এক অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক আছে বলে মন্তব্য করেন। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

আরও খবর

Contact Us