গাজীপুরে ২৪ দিনের বাচ্চা চুরি নিয়ে রহস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরে ২৪ দিনের বাচ্চা চুরি নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে মহানগরীর সিনা হাসপাতাল এলাকায় কয়েক দিন ধরে নানা আলোচনা হচ্ছে।

সিনা হাসপাতালের দক্ষিণ পাশে হাশেমের বস্তি। এই বস্তিতে থাকেন রফিক দম্পতি।

রফিকুল ইসলামের বাড়ি ময়মনসিংহের গৌরীপুরে। তিনি এখানে রিকশা চালান। তার স্ত্রী জাহানারা বেগম ওরফে নূপুর মাটি কাটার কাজ করেন।

দুজনেরই দ্বিতীয় সংসার এটি। তাদের সাথে নূপুরের প্রথম সংসারের দুই ছেলে সন্তানও থাকে।

নূপুর আলোকিত নিউজ ডটকমকে জানান, তিনি গত সোমবার সকালে ২৪ দিন বয়সী মেয়ে মীমকে নিয়ে সদর হাসপাতালে যাচ্ছিলেন। রাজবাড়ি মাঠের পাশ থেকে এক অপরিচিত মহিলা তার সাথে যায়। তিনি রথখোলা এলাকায় গেলে মীম বমি করে। তখন মীমকে ওই মহিলার কোলে দিয়ে পাশের বাড়িতে হাত ধুতে যান। হাত ধুয়ে এসে দেখেন মহিলা আর নেই। তিনি খোঁজাখুঁজি করেও পাননি।

নূপুরের এই কথা বিশ্বাস করতে পারছেন না বস্তিবাসী।

তারা বলছেন, ঘটনার পর নূপুরদের মোবাইলে ফোন এসেছে। বাচ্চা নিয়ে কথা হয়েছে। চুরি হলে ওই মহিলা তাদের মোবাইল নম্বর পেল কোথায়?

নূপুর তাদের মোবাইলে ফোন আসার কথা স্বীকার করেছেন।

ওয়াকিবহাল একজন বলেন, মীমের জন্মের পর রফিক নূপুরের আগের দুই সন্তানকে যত্ন কম করতেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। ওই জেদে মীমকে গোপনে বিক্রি করে দেওয়া হতে পারে।

এদিকে ঘটনাটি নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করতে নূপুর তালবাহানা করছেন।

তবে রফিকুল ইসলাম অভিযোগের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

আরও খবর

Contact Us